২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

সিনেমা মুক্তি নিয়ে তৃণমূল-বিজেপি বিতর্ক, কী বললেন দেব


দীর্ঘদিন পর মিঠুন চক্রবর্তী ও দেব অভিনীত নতুন সিনেমা ‘প্রজাপতি’ মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু মুক্তির পর সিনেমাটি নিয়ে এক নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে। ছবিটি মুক্তি পেয়েছে গত শুক্রবার। দেব, মিঠুনরা চেষ্টা করেছিলেন ছবিটি কলকাতার নন্দন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাক। কিন্তু নন্দন কর্তৃপক্ষ সেই সুযোগ দেয়নি নির্মাতাদের। তাই এ নিয়ে কার্যত ক্ষোভ দেখা দেয় চিত্রনির্মাতা, মিঠুন ও দেবের মনে। তবু তাঁরা এ নিয়ে প্রকাশ্যে তেমন জোরালো মুখ খোলেননি।গত শনিবার মুখ খুলেছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেছেন, মিঠুন চক্রবর্তী বিজেপি করেন বলেই দেবের সঙ্গে মিঠুনের অভিনীত ‘প্রজাপতি’ মুক্তি দেওয়া হয়নি নন্দনে। শুধু তা–ই নয়, এবারের কলকাতার আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবেও আমন্ত্রণ জানানো হয়নি মিঠুন চক্রবর্তীকে। অথচ, মিঠুনই হলেন এই বাংলার একমাত্র সুপারস্টার।কলকাতায় কোনো নতুন ছবি মুক্তি পেলে নির্মাতারা চান ওই ছবি নন্দনেও মুক্তি পাক। এর কারণও রয়েছে। নন্দনের ছবি দেখার টিকিটের মূল্য অন্য সব প্রেক্ষাগৃহের চেয়ে কম। তাই নির্মাতারা মধ্যবিত্ত মানুষের কথা মাথায় রেখে চায় ছবির মুক্তি হোক নন্দনেও। কিন্তু সেই সুযোগ এবার পেলেন না প্রজাপতির দুই অভিনেতা মিঠুন, দেবসহ ছবির নির্মাতারা। যদিও মিঠুন চক্রবর্তী একসময় তৃণমূলের রাজ্যসভার সংসদ সদস্য থাকলেও পরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। অন্যদিকে দেব রয়েছেন তৃণমূলেই। তিনি এখনো দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য তৃণমূলের সংসদ সদস্য রয়েছেন।দিলীপ ঘোষের এ মন্তব্যের পর তৃণমূল নেতা ও কলকাতার মেয়র এবং রাজ্যের পুর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম গতকাল রোববার জানিয়ে দেন, বিজেপির অভিযোগ ভিত্তিহীন। তিনি বলেন, নন্দনে কোনো ছবি দেখাতে হলে প্রেক্ষাগৃহ আগে থেকে বুক করতে হয়। কাজটা করতে হয় ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের। এই বুকিংয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কোনো হাত নেই। মিঠুন চক্রবর্তী রয়েছেন বলে প্রজাপতি শো পায়নি, এটা ঠিক নয়। ওই ছবিতে তো দেবও রয়েছেন। হতে পারে ‘প্রজাপতি’র জন্য আগে চিঠি দেওয়া হয়নি। অন্য কেউ আগে দিয়েছেন।

author

নিউজ ডেস্ক