Header Ads

দুজন গ্রেপ্তার আড়াই লাখ ইয়াবাসহ টেকনাফে


কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় ক্রেতা সেজে ২ লাখ ৬৩ হাজার ৯৮০টি ইয়াবা বড়িসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছেন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব-৭) চট্টগ্রামের সদস্যরা। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাবিরপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা বড়িসহ তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।গ্রেপ্তার দুজন হলেন টেকনাফ সদর ইউনিয়নের বড় হাবিরপাড়ার মৃত নজির আহাম্মদের ছেলে মো. আবদুর রশিদ (৩৬) ও সদরের গোদার বিলের আবদুর রহমানের ছেলে আবদুল হামিদ (২৬)। তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মশিউর রহমান জুয়েল প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, র‍্যাব-৭ চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে, কতিপয় মাদক কারবারি টেকনাফ সদরের হাবিরপাড়া এলাকার আবদুর রশিদের বসতঘরের সামনে মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছেন। ওই সংবাদের ভিত্তিতে রাতে র‍্যাবের একটি দল অভিযানে গেলে তাঁরা বিষয়টি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরে র‍্যাব সদস্যরা ধাওয়া করে আসামি আবদুর রশিদ ও আবদুল হামিদকে আটক করেন।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল মশিউর রহমান আরও বলেন, গ্রেপ্তার দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁদের তথ্যমতে, আবদুর রশিদের বসতঘরের সামনে আমগাছের নিচে মাটি খুঁড়ে বিশেষ কায়দায় রক্ষিত অবস্থায় ১ লাখ ৩৭ হাজার ৯০০টি ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া আবদুর রশিদের ভগ্নিপতি আবদুল হামিদের বসতঘরের গোসলখানার স্ল্যাবের নিচে লুকানো অবস্থায় ১ লাখ ২৬ হাজার ৮০টি ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়। ওই দুজনকে টেকনাফ মডেল থানার পুলিশে সোপর্দ করে তাঁদের বিরুদ্ধ মামলা করা হয়েছে।আসামিদের বরাত দিয়ে অধিনায়ক আরও বলেন, তাঁরা সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে বিভিন্ন কৌশলে কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি করছিলেন।জানতে চাইলে টেকনাফ মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) কর্মকর্তা খোরশেদ আলম আজ শনিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ইয়াবা বড়িসহ গ্রেপ্তার ওই দুই মাদক কারবারিকে আজ দুপুরে আদালতে পাঠানো হবে।

Powered by Blogger.