Header Ads

ওমানের স্থলসীমান্ত বন্ধ হতে যাচ্ছে


ওমানের স্থলসীমান্ত এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ হতে যাচ্ছে। মূলত করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের (স্ট্রেইন) ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে স্থানীয় সময় সোমবার থেকে নিজেদের স্থলসীমান্ত বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। আজ রোববার ওমানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম ওমান নিউজ এজেন্সি (ওনা) এই তথ্য দিয়েছে বলে জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।রয়টার্স বলছে, স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। আপাতত এক সপ্তাহের জন্য হলেও, এই সময়সীমা আরও বাড়তে পারে। গালফ স্টেটস করোনাভাইরাস ইমার্জেন্সি কমিটি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে ওনা জানায়।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরনের প্রাদুর্ভাব নিয়ে গালফ স্টেটস করোনাভাইরাস ইমার্জেন্সি কমিটি উদ্বিগ্ন। তবে কমিটি ভাইরাসের বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলেনি।স্থলসীমান্ত বন্ধের পাশাপাশি ওমানে মাস্ক পরা এবং গণজমায়েত এড়িয়ে চলার নির্দেশনাও জারি করা হয়েছে।জানুয়ারির শুরুতে ওমানে যুক্তরাজ্যের মতো করোনাভাইরাসের নতুন ধরনে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়। ওই ব্যক্তি ওমানের বাসিন্দা। সম্প্রতি তিনি যুক্তরাজ্য থেকে ওমানে ফিরেছেন। এর আগে এক সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর গত ২৯ ডিসেম্বর ওমানের স্থল, আকাশ ও জলসীমান্ত খুলে দেওয়া হয়েছিল।রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ওমানের প্রতিবেশী দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে দৈনিক করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা তিন হাজারের বেশি। যেখানে ওমানসহ অন্য পাঁচ উপসাগরীয় দেশগুলোতে দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা পাঁচ শর নিচে নেমে এসেছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে আজ রোববার ৩ হাজার ৪৫৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ২৫ হাজার ৩৭৪। এদিকে ওমানে আজ রোববার পর্যন্ত ১ হাজার ৫১২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে মোট রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ লাখ ৩১ হাজার ৭৯০ জন। 

ইতিমধ্যে ওমানে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। দেশটির প্রায় ৪২ লাখ মানুষকে ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনা টিকা দেওয়া হবে।প্রথম ধাপে স্বাস্থ্যকর্মী ও ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আনা হবে। এ ছাড়া যাঁরা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত, তাঁদেরও প্রথম ধাপে টিকা দেওয়া হবে। এদিকে স্থানীয় সময় রোববার টিকার দ্বিতীয় চালান গ্রহণ করতে যাচ্ছে ওমান।দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত তাঁরা ৩৮ হাজার ৯০০ ডোজ টিকা পেয়েছেন।ওমানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২৪ হাজার ২০৪ জনকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

Powered by Blogger.