Header Ads

ক্ষুব্ধ ইইউ ফাইজারের টিকা কম আসায়


ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বেশ কয়েকটি দেশে প্রত্যাশার চেয়ে ফাইজারের কম টিকা পৌঁছেছে।যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ধীরগতিতে টিকার চালান দেওয়ায় এ অবস্থা তৈরি হয়েছে।

আজ শনিবার বিবিসির খবরে জানা যায়, ইউরোপের ছয়টি দেশ এই পরিস্থিতিকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে মন্তব্য করেছে। তারা বলেছে, এটি টিকা প্রয়োগের ব্যাপারে মানুষের আস্থা কমিয়ে দেবে।

সুইডেন, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, লিথুনিয়া, লাটভিয়া ও এস্তোনিয়া টিকা সরবরাহের জন্য ফাইজার-বায়োএনটেককে চাপ দিতে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। ফাইজার বলেছে, টিকা কম সরবরাহ করার বিষয়টি সাময়িক।

স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার এক বিবৃতিতে ফাইজার জানায়, উৎপাদন বাড়াতে উৎপাদনপ্রক্রিয়ায় পরিবর্তন আনায় টিকার চালান কিছুটা কমেছে। জানুয়ারি মাসের শেষ থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের শুরু পর্যন্ত টিকার চালানে সাময়িকভাবে এই প্রভাব থাকবে। তবে ফেব্রুয়ারির শেষে ও মার্চে রোগীদের জন্য টিকার চালান বাড়বে ও টিকা সহজলভ্য হবে। যুক্তরাষ্ট্রের মডার্নার তৈরি টিকা ব্যবহারেরও অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এ কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নে টিকা সরবরাহ কেবল ফাইজার ও বায়োএনটেকের ওপর নির্ভরশীল নয়। উন্নয়নকাজ টিকাদান কর্মসূচি ধীর করবে। 

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাইজারের এ ঘোষণাকে বিস্ময়কর ও আফসোসজনক বলছেন। তিনি বলেছেন, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত টিকা দেওয়া হবে বলে ফাইজার ঘোষণা দিয়েছিল।

ইইউ কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন বলেন, ফাইজারের প্রধান নির্বাহী তাঁকে আশ্বস্ত করেছেন যে বছরের প্রথম তিন মাসে সব টিকার চালান পৌঁছাবে। গত সপ্তাহে ভন ডার লিয়েন বলেন, এ বছর ৬০ কোটি টিকার ডোজ সরবরাহ করতে ফাইজার সম্মত হয়েছে। প্রথমে যে পরিমাণ টিকা চাওয়া হয়েছিল এটি তার চেয়ে দ্বিগুণ।


রয়টার্সের খবরে জানা যায়, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭ দেশের এক-তৃতীয়াংশ এ সপ্তাহে এক বৈঠকে অপর্যাপ্ত টিকা পাওয়ার কথা জানিয়েছে।

লিথুনিয়া বলেছে, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে যে পরিমাণ ফাইজার টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়, তার মাত্র অর্ধেক টিকা এসে পৌঁছেছে।

বেলজিয়াম বলেছে, জানুয়ারি মাসে যে পরিমাণ টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তার মাত্র অর্ধেক টিকা পৌঁছেছে। কানাডাও টিকার সংকটে রয়েছে। কারণ, বেলজিয়ামে ফাইজারের কারখানা থেকে দেশটিতে টিকা আসে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যদেশ নরওয়ে স্থানীয় সময় শুক্রবার বলেছে, ফাইজার সাময়িকভাবে টিকার ডোজ কমিয়েছে। আগামী সপ্তাহে টিকার চালান আসবে।

দ্য নরওয়েন ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ বলেছে, জরুরি মজুতের টিকা ব্যবহার করে তারা ঘাটতি মেটাতে পারে। তিনি জানান, তাদের কাছে যে টিকার মজুত আছে তা কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত সরবরাহ করা যাবে।

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাইজারের এ ঘোষণাকে বিস্ময়কর ও আফসোসজনক বলছেন। তিনি বলেছেন, ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত টিকা দেওয়া হবে বলে ফাইজার ঘোষণা দিয়েছিল।

ইউরোপীয় কমিশন আরও পাঁচটি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিতে পৌঁছেছে। তাদের কাছ থেকে কয়েক লাখ টিকা কিনবে ইইউ। এই পাঁচটি প্রতিষ্ঠান হলো অ্যাস্ট্রেজেনেকা, স্যানোফি-জিএসকে, জনসন অ্যান্ড জনসন, কিউরভ্যাক ও মডার্না। ইইউ নোভাভ্যাক্সের সঙ্গেও ২০ কোটি টিকা আনার ব্যাপারে কথা বলেছে। এদিকে তুরস্ক চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের টিকা দুই দিনে অর্ধলাখ মানুষকে দেবে।

Powered by Blogger.