Header Ads

চমৎকার ১০টি হ্যাকস জানা আছে কি লিপবামের?


লিপবাম হ্যাকস! সেটা আবার কী? শীতকালেই আমরা সবচেয়ে বেশি লিপবাম ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে থাকি। কারণ, শীতকালে বাতাসের আর্দ্রতা কমে যায়। এর ফলে আমাদের স্কিন এবং ঠোঁটও খুব সহজেই দ্রুত রুক্ষ বা ড্রাই হয়ে পড়ে। তাই স্কিনের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে লিপবাম ব্যবহারের তুলনা হয়না। স্কিনের যত্নে বা ঠোঁটের যত্নে লিপবামের নানাবিধ ব্যবহার সম্পর্কে কম বেশি আমরা সবাই জানি। কিন্তু এছাড়াও প্রতিদিনের জীবনকে আরও সহজ করে তুলতে লিপবামের তুলনা হয়না। কীভাবে?  লিপবামের চমৎকার ১০টি হ্যাকস নিয়ে আজকের এই ফিচার।


লিপবামের চমৎকার ১০টি হ্যাকস

স্কিন এবং ঠোঁটের যত্নে তো লিপবাম আমরা সবাই ব্যবহার করি। কিন্তু এর পাশাপাশি দৈনন্দিন জীবনেও লিপবামের রয়েছে আরও ভিন্ন কিছু অজানা ব্যবহার! চলুন সেগুলো জেনে নেয়া যাক।


১. ঠোঁটের এক্সফলিয়েটর হিসেবে লিপবাম

নরম ও মোলায়েম ঠোঁট পেতে আমরা অনেকেই ঠোঁটে এক্সফলিয়েটর ব্যবহারের কথা জানি। লিপবাম ব্যবহার করে খুব সহজেই কিন্তু আমরা ঠোঁট এক্সফলিয়েটর এর কাজ করতে পারি। এর জন্যে ঠোঁটে লিপবাম অ্যাপ্লাই করে আপনার টুথব্রাশের সাহায্যে ঠোঁটে হালকা করে কিছুক্ষণ স্ক্রাব করুন। এরপর নরম একটি কাপড় বা ট্যিসু দিয়ে ঠোঁটটি ভাল করে মুছে পরিষ্কার করে ফেলুন। আমাদের অনেকের ঠোঁটেই মৃত কোষ বা চামড়ার মত উঠে উঠে থাকে। যা খুবই বিরক্তিকর! এভাবে লিপবাম এক্সফলিয়েটর হিসেবে ইউজ করে সহজেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।


২. মাশকারা লং লাস্টিং করতে লিপবাম

মাশকারা অ্যাপ্লাই করতে যেয়ে চোখের পাপড়ি একটির সাথে আর একটি লেগে লেগে থাকে?  আমাদের অনেকেরই এটি একটি কমন সমস্যা। এক্ষেত্রে সহজ সমাধান দিবে আপনার হাতের কাছে থাকা লিপবামটি। মাশকারা অ্যাপ্লাই করার ঠিক আগে হাতে একটু লিপবাম নিয়ে চোখের ল্যাশগুলোতে আগে হালকা করে লাগিয়ে নিন। এরপর মাশকারা অ্যাপ্লাই করুন। দেখবেন আর পাপড়ি একটির সাথে অন্যটি লেগে যাচ্ছে না!


৩. চোখের পাপড়ি ঘন করতে লিপবাম

চুল বা চোখের পাপড়ি ঘন করতে আমরা অনেকেই ক্যাস্টর অয়েলের ব্যাবহার নিয়ে জানি। তবে, হাতের কাছে ক্যাস্টর অয়েল না থাকলেও চিন্তার কোন কারণ নেই। লিপবাম এক্ষেত্রে হতে পারে সবচেয়ে সহজ সমাধান! কি করতে হবে? কিছুই না! জাস্ট রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে চোখের পাপড়িতে অল্প একটু পরিমাণে লিপবাম অ্যাপ্লাই করে নিন। কয়েকদিন রেগুলার ব্যাবহারের একটা ভিজিবল চেইঞ্জ দেখতে পাবেন।


৪. ব্যবহার করা গয়না সহজেই খুলতে লিপবাম

এ ধরণের সমস্যার আমরা কম বেশি সবাই মুখোমুখি হয়েছি। তাইনা? হাতের আংটি বা চুড়ি অনেক সময় খুলে আসতে চায়না। অনেক বেশি টাইট মনে হয়। এক্ষেত্রে হাত বা হাতের আঙুলের কাছাকাছি অল্প একটু পরিমাণে লিপবাম লাগিয়ে নিন। এবার খুলার চেষ্টা করুন। দেখবেন খুব সহজেই খুলে আসবে।


৫. মেকআপ রিমুভ করতে লিপবাম

মেকআপ রিমুভ করতে “ডাবল ক্লিনজিং” এই শব্দটির সাথে আমরা অনেকেই পরিচিত। কিন্তু সব সময় যে হাতের কাছে মিসেলার ওয়াটার বা ক্লিনজিং অয়েল থাকবে তা কিন্তু নয়! তাহলে কি করবো? এই সমস্যার তাৎক্ষণিক সমাধান দিবে হাতের কাছে থাকা লিপবামটি! কিভাবে? সিম্পলি একটি কটন বা তুলা নিয়ে নিন। এবার মুখে লিপবাম লাগিয়ে তুলার সাহায্যে আস্তে আস্তে রাউন্ড মোশনে মেকআপ তুলে নিন। দুটি বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন। এক, মেকআপ রিমুভ করার সময় একদমই তাড়াহুড়া করা যাবেনা এবং জোরে জোরে ঘষাঘষি করা যাবেনা। দুই, মেকআপ রিমুভ করার সাথে সাথেই একটি ভাল ফেইসওয়াশ ব্যবহার করে মুখটি প্রপারলি ক্লিন করে নিতে হবে। 


৬. পারফিউম লং লাস্টিং করতে লিপবাম

শরীরের যে জায়গাগুলোতে পারফিউম বা বডি স্প্রে ব্যবহার করা হয় একটু সময় নিয়ে আগে সেখানে অল্প একটু লিপবাম অ্যাপ্লাই করে নিন। এতে পারফিউম এর স্মেল আরও  অনেক সময় ধরে লং লাস্টিং হবে।


৭. কাপড় থেকে মেকআপের দাগ তুলতে লিপবাম

কি অবাক হচ্ছেন? লিপবাম আবার কিভাবে মেকআপের দাগ তুলবে? আসলেও তাই। অসাবধানতার জন্যে অনেক সময়ই আমাদের কাপড়ে মেকআপ প্রসাধনী পড়ে যায়! প্যানিক না করে দ্রুত সেখানে লিপবাম লাগিয়ে নিন। আস্তে আস্তে মেকআপের দাগটি উঠে আসবে।


৮. নেইল পলিশ না ছড়াতে লিপবাম

নেইল পলিশ লাগাতে গেলেই হাতের আশেপাশে লেগে বিচ্ছিরি অবস্থা হয়ে যায়? কোন চিন্তা নেই! নেইল পলিশ দেয়ার ঠিক আগে আপনার আঙুলের চারপাশে লিপবাম লাগিয়ে নিন। এতে করে নেইল পলিশ আর ছড়াবে না। এবং ছড়ালেও তুলা দিয়ে হালকা করে টান দিলেই উঠে আসবে সহজেই।


৯. চুলের আগা ফাটা রোধে লিপবাম

চুলের আগা ফাটার সমস্যা হয় কম বেশি আমাদের সবারই। রাতে ঘুমানোর আগে চুলের আগায় পরিমিত পরিমাণে লিপবাম হালকা করে মেখে নিন। কয়েকদিন এইভাবে চুলের আগায় লিপবাম অ্যাপ্লাই করলেই আগা ফাটার সমস্যা কমে আসবে।


১০. ইনস্ট্যান্ট জুতার উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে

তড়িঘড়ি করে বের হয়ে হচ্ছেন কোথাও এমন সময় একদিকে জুতা যেমন ময়লা হয়ে আছে তেমনি হাতের কাছে জুতা পলিশটিও নেই। কি করবেন ভাবছেন? চিন্তার কোন কারণ নেই। লিপবাম হতে পারে এসময় আপনার সেরা ভরসা। হালকা একটু লিপবাম জুতায় মেখে ট্যিসু দিয়ে আস্তে আস্তে মুছে নিন। নিমিষেই চকচক করবে আপনার জুতা জোড়া।


দেখলেন তো! কোনদিন কি ভেবেছিলেন এই এক লিপবাম দিয়ে এত কিছু করা পসিবল? লিপবামের কিন্তু আরও অনেক ব্যবহার রয়েছে। তবে আজকে যেই হ্যাকসগুলো নিয়ে কথা হলো, এগুলো নির্দ্বিধায় আপনার জীবনযাত্রাকে করে তুলবে সহজ। শীতকাল চলে গেলেই হয়তো ভাবতেন এখন লিপবামটাও অকেজো হয়ে গেল। তাইনা? আশা করছি, আজকে থেকে এমনটি আর মনে হবেনা। কোনো একটি স্পেসিফিক সিজনে নয়, বরং লিপবাম হতে পারে আমাদের পরম বন্ধু সারা বছর জুড়েই। মার্কেটে বা অনলাইন শপগুলোতে এখন বিভিন্ন ব্র্যান্ডের লিপবাম পাওয়া যায়।

সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন, সুন্দর থাকবেন।

Powered by Blogger.