Header Ads

গবেষকরা নিশ্চিত করলেন, আমরা কম্পিউটার সিমুলেশন নই

এ মহাবিশ্বের মধ্যে বাস করা মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীরা কি বাস্তবেই আছে, নাকি সবাই একটি কম্পিউটারের সিমুলেশন, এ প্রশ্ন তৈরি হয়েছিল বেশ কিছুদিন আগেই। কয়েকটি চলচ্চিত্রেও এমন বিষয় উঠে এসেছিল, যেখানে দেখা গিয়েছিল বাস্তবের সঙ্গে সিমুলেশন করা জগতের পার্থক্য। আর তাতেই প্রশ্ন উঠেছিল, আমাদের পৃথিবী ও আমরা বাস্তবেই এমন কোনো সিমুলেশন না তো? কম্পিউটারের প্রোগ্রাম করা বস্তু কি সমগ্র পৃথিবী?
সম্প্রতি গবেষকরা এ বিষয়টি নিয়ে গবেষণাও করেছেন। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল বিজ্ঞানী বিষয়টিটে গুরুত্ব দিয়ে গবেষণা করেছেন। তারা জানিয়েছেন, এলিয়েনদের সিমুলেশন করা কম্পিউটার প্রোগ্রাম নই আমরা।
হলিউডের সেই কাহিনী
হলিউডের অসাধারণ ট্রিলজি ম্যাট্রিক্সে উঠে এসেছিল এমনই এক সিমুলেশনের কথা। প্রোগ্রামার নিও অন্য সবার মতো কাজ করত একটা সফটওয়্যার কোম্পানীতে। একদিকে ছিল তার গোছানো, ছিমছাম নিত্যকার এই জীবন, যেখানে তাকে নিয়মিত ট্যাক্স পরিশোধ করতে দেখা যায়, কিংবা বয়স্ক কোনো মহিলাকে রাস্তা পার করে দিতে দেখা যায়। আর অন্যদিকে অন্ধকার এক জগতের বাসিন্দা সে। যে জগতে তার মনে নিজের অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন জাগে, তার চারপাশের জগতের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন জাগে, যে জগতে সে হ্যাকিং করে বেড়ায় বিভিন্ন বড় বড় কোম্পানীর শক্তিশালী সিকিউরিটি সিস্টেম। যুক্ত থাকে বিভিন্ন বড় বড় অপরাধের পেছনে।
একদিন সে জানতে পারে তার জগতের সবচেয়ে বড় সত্য। তার এতদিনের জানাশোনা দুনিয়া, সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না সবকিছুই একটা বিশাল কম্পিউটার সিস্টেমের একটা সাধারণ সিম্যুলেশান ছাড়া অন্য কিছু নয়! সে জানতে পারে, এক ভয়াবহ পরিণতি ঘটে গেছে পৃথিবীর। পৃথিবীতে শক্তির প্রধান উৎস যে সূর্যের আলো তা আর গ্যাস, ধূলিকণায় আবদ্ধ পৃথিবীতে আসতে পারছে না। পৃথিবীর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে যন্ত্র। আর তাই শক্তির বিকল্প উৎস হিসেবে মানুষের শরীরকেই ব্যাটারি হিসেবে ব্যবহার করছে যন্ত্ররা। আর সেই মানুষগুলোর মস্তিষ্কে দিয়ে রেখেছে এক কম্পিউটার সিম্যুলেশন, যেখানে মানুষ নিত্যকার জীবনের মতই আবেগ-ভালোবাসা, সুখ-দুঃখ সব কিছুর অনুভূতি পাবে।
আমরা সিমুলেশন নই
সিনেমার সেই দৃশ্যকে অনেকেই বাস্তবের সঙ্গে মিলিয়েছিলেন। তাদের বক্তব্য ছিল, আমাদের কাছে এরকম কোনো প্রমাণ আছে কি যে আমাদের মহাবিশ্বও কোন এলিয়েনের কম্পিউটার সিমুলেশন না?
অক্সফোর্ডের গবেষকরা বলছেন, বাস্তব পৃথিবীর মতো এমন সিমুলেশন তৈরি করা সম্ভব নয়। এত বিশাল সিমুলেশনের জন্য বিশ্বের প্রত্যেক প্রাণীর জন্যই পৃথক ব্যবস্থা করতে হবে।এ সিমুলেশনের জন্য এত বড় কম্পিউটার সিস্টেম তৈরি করতে হবে যে তা একেবারেই অসম্ভব। কারণ সব বিষয় কম্পিউটারে ধারণ করলে বাস্তব পৃথিবীর চেয়েও বড় হয়ে যাবে সে কম্পিউটার সিস্টেম।
আরেকটি যুক্তি হিসেবে তারা বলছেন, সব বিষয় সিমুলেশনে করা সম্ভব নয়। এর বাইরেও রয়েছে কয়েকটি প্রাকৃতিক বিষয়, যা সিমুলেশনে আনা অসম্ভব।
এ বিষয়ে গবেষকদের প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছে সায়েন্স অ্যাডভান্সেস জার্নালে।
Powered by Blogger.